ADS
ব্রেকিং নিউজঃ
হোম / সারা বাংলা / বিস্তারিত
ADS

তিন জেলায় বজ্রপাতে ১০ জনের মৃত্যু

২০ মে ২০২১, ৯:৩০:০৬

দেশের তিন জেলায় বজ্রপাতে ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছেন পাঁচজন। বৃহস্পতিবার জামালপুর, চাঁপাইনবাবগঞ্জ ও সিলেট জেলায় এসব বজ্রপাতের ঘটনা ঘটেছে। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি মারা গেছে জামালপুরের ইসলামপুরে। এই উপজেলার পৃথক চারটি স্থানে বজ্রপাতে ছয়জনের মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছেন আরও পাঁচজন। এছাড়া চাঁপাইনবাবগঞ্জে তিনজন এবং সিলেটে একজনের মৃত্যু হয়েছে বজ্রপাতে। ঢাকাটাইমসের প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর।

জামালপুর: বৃহস্পতিবার বিকালে জেলার ইসলামপুর উপজেলার পাথর্শী, গাইবান্ধা, সাপধরী ও পলবান্ধা ইউনিয়নে বজ্রপাতে ছয়জনের মৃত্যু হয়েছে।

নিহতদের মধ্যে পাথর্শী ইউনিয়নের জারুলতলা এলাকার এনামুল, কালা শেখ, শাহ জামাল, সাপধরী ইউনিয়নের প্রজাপতির চর এলাকার বিল্লালের নাম জানা গেছে। এছাড়া গাইবান্ধা ইউনিয়নে একজন এবং পলবান্ধা ইউনিয়নে একজন মারা গেছেন।

জানা যায়, বিকালে বৃষ্টি ও ঝড়ো হাওয়ার সঙ্গে হঠাৎ বজ্রপাত শুরু হয়। বৃষ্টির মধ্যে মাঠে কাজ করার সময় বজ্রপাতে ছয়জনের মৃত্যু হয়। আহত হন এক নারীসহ পাঁচজন। তাদের ইসলামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

বজ্রপাতে ছয়জনের মৃত্যুর সত্যতা নিশ্চিত করেছেন ইসলামপুর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাজেদুর রহমান।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ: জেলার নাচোল ও শিবগঞ্জে কৃষক-নারীসহ তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার মোবারকপুর ও নাচোল উপজেলার কসবা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

মৃতরা হলেন মোবারকপুর গ্রামের আব্দুস সাত্তারের ছেলে কৃষক জালাল উদ্দিন, একই ইউনয়িনের গুয়াবাড়ী চাঁনপুর গ্রামের আবু তালেবের স্ত্রী রহিমা বেগম ও নাচোল উপজেলার কসবা ইউনিয়নের আঝোইড় গ্রামের ওবাইদুর রহমানের মেয়ে মারুফা খাতুন।

মোবারকপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান তৌহিদুল ইসলাম জানান, বৃহস্পতিবার বেলা ২টার দিকে মোবারকপুর ইউনিয়নের মোবারকপুর গ্রামের পাশে বিল থেকে ধান কেটে বাড়ি ফেরার সময় বজ্রপাত হলে ঘটনাস্থলেই জালালের মৃত্যু হয়। আর রহিমা বেগম আম কুড়াতে গিয়ে বজ্রপাতের শিকার হয়ে মারা যান।

নাচোল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সেলিম রেজা মারুফার মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, দুপুরে বাগানে আম কুড়াতে গিয়ে বজ্রপাত হলে শিশু মারুফার মৃত্যু হয়।

সিলেট: সকালে জেলার গোয়াইনঘাট উপজেলায় বজ্রপাতে বাবুল মিয়া নামে এক কৃষক নিহত হয়েছেন। নিহত বাবুল উপজেলার কাকুনাখাই গ্রামের মৃত আব্দুল হকের ছেলে।

পুলিশ জানায়, সকালে বৃষ্টির মধ্যে জমিতে কাজ করছিলেন বাবুল। এ সময় বজ্রপাত হলে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। পরে স্থানীয়রা তার মরদেহ উদ্ধার করে।

গোয়াইনঘাট থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল আহাদ বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। নিহতের স্বজনদের কাছে ময়নাতদন্ত ছাড়াই মরদেহ হস্তান্তর করা হয়েছে।

ADS ADS

প্রতিছবি ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Comments: