ADS
হেডলাইন
◈ যাদের অট্টালিকা-ফ্ল্যাট-বাড়ি সবই আছে, তাদের আরও লাগবে কেন: প্রধানমন্ত্রী ◈ দ্বিতীয় পরীক্ষাতেও করোনা নেগেটিভ সাকিব ◈ এবার মমতাকে ‘রাক্ষসী’ বললেন কঙ্গনা রানাউত ◈ করোনা থেকে বাঁচতে কোন মাস্ক বেশি নিরাপদ ◈ ঈদে ঘরেই ভ্রু প্লাক করবেন যেভাবে ◈ ইফতারে মজাদার গার্লিক ব্রেড তৈরি করবেন যেভাবে ◈ সোহরাওয়ার্দীর গাছ কাটা বন্ধে ৬ সংগঠন ও এক ব্যক্তির রিট ◈ আগামী তিনদিন ঝড়-বৃষ্টি বাড়তে পারে ◈ খালেদা জিয়ার আবেদন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে ◈ চলছে বিজিবির টহল, তবুও যাত্রী নিয়ে ছাড়লো ফেরি ◈ ড. ওয়াজেদ মিয়ার আদর্শ নতুন প্রজন্মের পাথেয় হয়ে থাকবে: রাষ্ট্রপতি ◈ করোনায় বেসামাল ভারত, সংক্রমণ চার লাখের নিচে নামছেই না ◈ মা দিবসের শুভেচ্ছা জানালেন সাকিব ◈ ২৭ দিন পর করোনামুক্ত খালেদা জিয়া ◈ দেশবরেণ্য পরমাণু বিজ্ঞানী ওয়াজেদ মিয়ার মৃত্যুবার্ষিকী আজ ◈ সাদিক খান আবারও লন্ডনের মেয়র ◈ ফেরিঘাটে মানুষের পারাপার ঠেকাতে বিজিবি মোতায়েন ◈ ভারত মহাসাগরে আছড়ে পড়লো চীনা রকেটের ধ্বংসাবশেষ ◈ আজ পবিত্র লাইলাতুল কদর ◈ বিশ্ব মা দিবস আজ
হোম / বিনোদন / বিস্তারিত
ADS

সাড়ে পাঁচ লাখ টাকার ঘড়ি ব্যবহার করতেন রোমানা!

১৩ মার্চ ২০২১, ৮:০৯:২০

রোমানা ইসলাম স্বর্ণা। মডেলিংয়ের মাধ্যমে ২০০৬ সালের শেষের দিকে শোবিজে নাম পা রাখেন। টেলিভিশন নাটকে অভিনয়ের পাশাপাশি সিনেমাতেও অভিনয় করেছেন তিনি। ২০১৬ সালে ‘রান আউট’ সিনেমায় দেখা গিয়েছিল তাকে।

প্রতারণার অভিযোগে গত বৃহস্পতিবার (১১ মার্চ) বিকেলে রোমানা স্বর্ণাকে গ্রেফতার করে পুলিশ। সৌদি প্রবাসী কামরুল ইসলাম জুয়েলের অভিযোগের ভিত্তিতে মোহাম্মদপুরের লালমাটিয়া এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারের পর বেরিয়ে আসছে রোমানার বিরুদ্ধে বিভিন্ন তথ্য। তার নামে রীতিমতো অভিযোগের পাহাড় জমা হয়েছে থানায়।

প্রবাসী কামরুল ইসলাম জুয়েল জানান, ২০১৮ সালে স্বর্ণার সঙ্গে পরিচয়। ২০১৯ সালের মার্চে বিয়ে হয় তাদের। সে সময় কাবিননামায় বিধবা বলে উল্লেখ করে স্বর্ণা। বিয়ের পর অর্থনৈতিক অসহায়ত্বের কথা বলে কামরুলের কাছে টাকা চায় এ অভিনেত্রী। তারপর প্রশাসন ও রাজনৈতিক গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের দিয়ে ব্যবসা সম্প্রসারণের কথা বলে আরও টাকা চায়।

ভুক্তভোগী কামরুল আরো জানান, রোমানা স্বর্ণার আগে সন্তানকে বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ানোর জন্যও টাকা নিয়েছে সে। স্বর্ণা সাড়ে পাঁচ লাখ টাকা দামের ঘড়ি, দুটি নতুন মডেলের আইফোন ব্যবহার করত। সেগুলো কিনে দিয়েছিলেন কামরুল।

কামরুলের দেওয়া তথ্য থেকে জানা গেছে, ২০১৮ সালের নভেম্বরে ইউসিবিএল ব্যাংকের ধানমন্ডি শাখায় রোমানার হিসাবে আড়াই লাখ এবং পরে আট লাখ টাকা পাঠান তিনি। কামরুলের বন্ধু রিপনের ডেমরার বাসা থেকে নেন ১২ লাখ। এ টাকা দিয়ে গাড়ি কিনেন। এরপর কামরুলের বন্ধু যাত্রাবাড়ীর ফার্নিচার ব্যবসায়ী উজ্জ্বল শরীফ এবং মামা তোফায়েল আহম্মেদের কাছ থেকে মোট দশ লাখ টাকা নেয় রোমানা।
ইউসিবিএল ধানমন্ডি শাখায় রোমানা ও তার মা আশরাফী আক্তার শেলীর হিসাবে কয়েক দফায় এক লাখ থেকে সর্বোচ্চ পাঁচ লাখ টাকা পর্যন্ত সাতবার নেয়। একইভাবে বড় অঙ্কের অর্থ নিতে থাকেন ছোট ভাই নাহিদ হাসানার রেমির ডাচ-বাংলা ব্যাংক ও সিটি ব্যাংকের উত্তরা শাখার হিসাবে। এভাবে ফ্ল্যাট কেনা বাবদ নেন ৬৬ লাখ আট হাজার টাকা।

বিয়ের পর জীবনটা বিষিয়ে ওঠে উল্লেখ করে কামরুল জানান, বিয়েতে দেনমোহর দেওয়া হয় ১০ লাখ টাকা। তার সঙ্গে ৩৩ ভরি স্বর্ণ নেয় রোমানা স্বর্ণা।

ADS ADS

প্রতিছবি ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Comments: