ADS
হেডলাইন
◈ অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াতে আহ্বান রাষ্ট্রপতির ◈ ঈদ ফিরতি যাত্রা নিয়ন্ত্রণে সুপারিশ স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ◈ গাজায় ৪০ মিনিটে ৪৫০টি ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়েছে ইসরায়েল ◈ ঈদের দিন বিশ্বনবী (সাঃ) যেগুলো কাজ করতেন ◈ পোশাক শ্রমিকদের মূল বেতন বাড়লেও আয় কমেছে ◈ দেশে ইন্টারনেটের দাম বেশি না : মোস্তাফা জব্বার ◈ ঈদের রেসিপি: ধনেপাতায় মাটন কষা ◈ ফল খাওয়ার পর পানি খেলে যেসব সমস্যা হতে পারে ◈ ঈদে শাড়িতেই ফ্যাশন করুন ৫টি দুর্দান্ত উপায়ে ◈ মোবাইল চুরি নিয়ে ঈদের দিন দুই পক্ষের সংঘর্ষ, আহত ২১ ◈ জেমসকে নিয়ে ‘কুরুচিপূর্ণ’ স্ট্যাটাস নোবেলের ◈ সাকিব-মুস্তাফিজের হোটেল বন্দি ঈদ! ◈ কম পরীক্ষায় শনাক্ত হাজারের নিচে, মৃত্যু ২৬ ◈ ডিএনসিসি হাসপাতালে করোনার ‘ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট’ রোগী শনাক্ত ◈ আফগানিস্তানে জুম্মার নামাজের সময় বোমা বিস্ফোরণ, নিহত ১২ ◈ ‘আশা করি আল্লাহর রহমতে দ্রুত করোনা থেকে পরিত্রাণ পাব’ ◈ বিনোদন কেন্দ্র বন্ধ, আরও পানসে নগরবাসীর ঈদ আনন্দ ◈ বায়তুল মোকাররমে ঈদের প্রথম জামাত অনুষ্ঠিত ◈ পবিত্র ঈদুল ফিতর আজ ◈ আগামীকাল পবিত্র ঈদুল ফিতর
ADS

গ্রামের বাড়িতে দাফন করা হবে মিতা হককে

১১ এপ্রিল ২০২১, ১২:০৮:২৪

সদ্য প্রয়াত রবীন্দ্রসংগীতশিল্পী মিতা হককে ঢাকার কেরানীগঞ্জের মনোহারিয়ায় দাফন করা হবে বলে জানিয়েছে তার পরিবার। সেখানে এই শিল্পীদের গ্রামের বাড়ি। বর্তমানে মিতা হকের মৃতদেহ রয়েছে ছায়ানটে। সেখানে শিল্পীকে শেষ শ্রদ্ধা জানানোর পর মরদেহ নিয়ে যাওয়া হবে কেরানীগঞ্জে।

রবিবার ভোর ৬টায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা যান মিতা হক। তিনি বাংলাদেশ স্পেশালাইজড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। শারীরিক অবস্থা গুরুতর হওয়ায় সেখানে তাকে আইসিইউতে লাইফ সাপোর্ট দিয়ে রাখা হয়েছিল। এই অবস্থার মধ্যেই চিরঘুমে চলে যান জনপ্রিয় এই রবীন্দ্রসংগীতশিল্পী।

মিতা হকের জন্ম ১৯৬২ সালে। তিনি বাংলাদেশ বেতারের সর্বোচ্চ গ্রেডের তালিকাভুক্ত শিল্পী ছিলেন। সংগীতে গুরুত্বপূর্ণ অবদানের জন্য বাংলাদেশ সরকার তাকে ২০২০ সালে একুশে পদক প্রদান করে। ২০১৬ সালে পান শিল্পকলা পদক। তিনি ছায়ানটের রবীন্দ্রসংগীত বিভাগের প্রধান ছিলেন।

মিতা হক সুরতীর্থ নামে একটি সংগীত প্রশিক্ষণ দল গঠন করেন। জীবদ্দশায় তিনি সেখানে পরিচালক ও প্রশিক্ষক হিসেবে কাজ করেছেন। এছাড়া রবীন্দ্রসংগীত শিল্পী হিসেবে তিনি নিজের স্বতন্ত্র অবস্থান তৈরি করতে সক্ষম হয়েছিলেন। ১৯৭৬ সাল থেকে তিনি গান শিখেছিলেন তবলাবাদক মোহাম্মদ হোসেন খানের কাছে।

১৯৯০ সালে বিউটি কর্নার থেকে প্রকাশিত হয় মিতা হকের প্রথম রবীন্দ্রসংগীতের অ্যালবাম ‘আমার মন মানে না’। ক্যারিয়ারে তিনি প্রায় ২০০ রবীন্দ্রসংগীতে কণ্ঠ দিয়েছেন। তার এককভাবে মুক্তি পাওয়া মোট ২৪টি অ্যালবাম আছে। এর মধ্যে ১৪টি ভারত থেকে ও ১০টি বাংলাদেশ থেকে প্রকাশিত হয়।

ADS ADS

প্রতিছবি ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Comments: