ADS
হেডলাইন
◈ ঢালাওভাবে বিদেশি পরামর্শক নিয়োগ নয়: প্রধানমন্ত্রী ◈ সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের নিঃশর্ত মুক্তির দাবি জাতীয় পার্টির ◈ ভুল স্বীকার করলেন নোবেল ◈ লিবিয়া উপকূলে নৌকাডুবি, ৩৩ বাংলাদেশি উদ্ধার ◈ স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সংবাদ ব্রিফিং বর্জনের ঘোষণা ◈ নথিগুলো প্রকাশ পেলে দেশের ক্ষতি হয়ে যেত: স্বাস্থ্যমন্ত্রী ◈ জুনে স্কুল-কলেজ খুলতে চায় শিক্ষা মন্ত্রণালয় ◈ রোজিনা বৃহস্পতিবার জামিন পাবেন, আশা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর ◈ বাংলা একাডেমির সভাপতি হলেন অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম ◈ মুক্তির দিনেই ইতিহাস গড়েছে সালমানের ‘রাধে’ ◈ বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা চূড়ান্ত সময়সূচি ◈ নেত্রকোনায় বজ্রপাতে সাতজনের মৃত্যু ◈ এবার রেড ক্রিসেন্ট ভবনে ইসরাইলি বিমান হামলা ◈ কাশিমপুর কারাগারে সাংবাদিক রোজিনা ◈ বিসিবির সম্প্রচার স্বত্ব কিনল বাংলাদেশি প্রতিষ্ঠান ◈ সিলেটে ছুরিকাঘাতে চীনা নাগরিক নিহত ◈ জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সব পরীক্ষা স্থগিত ◈ রাজধানীতে স্বস্তির বৃষ্টি ◈ করোনায় আরও ৩০ মৃত্যু, শনাক্ত ১২৭২ ◈ করোনার বছরেও শীর্ষ রেমিট্যান্স আহরণকারী দেশের তালিকায় বাংলাদেশ
হোম / প্রবাস / বিস্তারিত
ADS

দিল্লিতে ৪ বাংলাদেশি গ্রেফতার, চুরি-ডাকাতি-ছিনতাইয়ের অভিযোগ

৮ এপ্রিল ২০২১, ১০:২০:৩৭

ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লিতে চার বাংলাদেশিকে গ্রেফতার করেছে স্থানীয় পুলিশ। চুরি, ডাকাতি এবং ছিনতাইয়ের অভিযোগে তাদের গ্রেফতার করা হয়েছে। এক প্রতিবেদনে এ তথ্য নিশ্চিত করেছে টাইমস অব ইন্ডিয়া।

জানা যায়, দিল্লি পুলিশের অপরাধ তদন্ত শাখা সোমবার শ্রী ফোর্ট রোড এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করেছে।

দিল্লি পুলিশের দাবি বলছে, এই চোর চক্র দিল্লির বিভিন্ন এলাকায় শতাধিক চুরি, ডাকাতির সঙ্গে সংশ্লিষ্ট ছিলো। গ্রেফতারকৃতরা হলেন, রফিক লস্কর, মোহাম্মদ সেলিম ওরফে সাইফরাত, আজিজুল রহমান এবং মিজানুর রহমান। তাদের কাছ থেকে একটি আগ্নেয়াস্ত্র, দুটি ছুরি, চারটি গুলি এবং বাড়ি ভাঙার দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে।

টাইমস অব ইন্ডিয়া জানায়, পুলিশ এই চার বাংলাদেশিকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে এবং তাদের সঙ্গে আরো কেউ জড়িত আছেন কি না তা জানার চেষ্টা করছে।

গ্রেফতারকৃতদের সবাই বাংলাদেশি বলে জানিয়ে পুলিশ বলছে, এই চক্রের সদস্যরা গত কয়েক বছর ধরে ভারতের বিভিন্ন প্রান্তে অবৈধভাবে বসবাস করে আসছিলেন। দেশজুড়ে বিভিন্ন অপরাধ সংঘটিত করেছে তারা। এখন পর্যন্ত তাদের বিরুদ্ধে শতাধিক চুরি, ডাকাতি এবং ছিনতাইয়ের অভিযোগ এসেছে পুলিশের কাছে।

দিল্লি পুলিশ বলছে, চুরি করতে গিয়ে অনেক সময় এই চক্রের সদস্যরা ভুক্তোভূগীদের গুলিবর্ষণ এবং ছুরিকাঘাত করতেন। পুলিশের নজর এড়াত তারা দিল্লির আশপাশের এলাকায় অবস্থান নেন। তথ্য অনুযায়ী, চক্রের সদস্যরা দিল্লি থেকে শুরু করে ফরিদাবাদ, যোধপুর, আওরঙ্গবাদ, গুলবার্গা, ভাপি, বেঙ্গালুরু, পুনে এবং মুম্বাইয়েও চুরি-ডাকাতি করতেন।

ADS ADS

প্রতিছবি ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Comments: