ADS
হেডলাইন
◈ সস্ত্রীক করোনার টিকার দ্বিতীয় ডোজ নিলেন রাষ্ট্রপতি ◈ ভার্চুয়াল উপস্থিতিতে নিম্ন আদালত থেকে দু’দফায় এক লাখ জামিন ◈ শনিবার রাতে পৃথিবীতে আছড়ে পড়তে পারে সেই চীনা রকেট! ◈ বাংলাদেশ থেকে শ্রমিক নিতে গ্রিসের আগ্রহ প্রকাশ ◈ দেশে ফিরেছেন সাকিব-মোস্তাফিজ, হোটেলে কোয়ারেন্টাইন ◈ কাল সারাদেশের মসজিদে বিশেষ দোয়া ◈ আজ হচ্ছে না খালেদার বিদেশ যাওয়ার সিদ্ধান্ত ◈ পশ্চিমবঙ্গে ভোট পুনর্গণনার দাবিতে আদালতে যাচ্ছে বিজেপি ◈ সব পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা হবে অনলাইনে ◈ করোনায় দেশে মৃত্যু কমে ৪১ জন, শনাক্ত ১৮২২ ◈ করোনা মুক্ত হলেন খালেদা জিয়া ◈ মমতাকে অভিনন্দন জানালেন শেখ হাসিনা ◈ দেশে অক্সিজেনের কোনো ঘাটতি নেই: স্বাস্থ্যমন্ত্রী ◈ এনটিআরসিএর গণবিজ্ঞপ্তি স্থগিতের নির্দেশ ◈ এবার দৈত্যরূপে হিরো আলম ◈ সাড়ে ৪ হাজার ইউপি ব্রডব্যান্ডের সংযোগ পাচ্ছে ◈ ঢাকা-খুলনা মহাসড়কে বাস চললেও নেই যাত্রী ◈ খালেদা জিয়ার আবেদন পেয়েছি, দ্রুত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে : আইনমন্ত্রী ◈ বাসায় করোনা রোগীদের হঠাৎ শ্বাসকষ্ট হলে যা করবেন! ◈ রোজায় ডায়াবেটিস রোগীরা যা খাবেন ইফতার-সেহরিতে
ADS

আরও ৬১ মৃত্যু, শনাক্ত ১৯১৪

৪ মে ২০২১, ৭:০৭:৩৬

গত একদিনে করোনাভাইরাসে মারা গেছেন আরও ৬১ জন। এ নিয়ে ভাইরাসইটিতে আক্রান্ত হয়ে মারা গেলেন ১১ হাজার ৭০৫ জন।

এদিকে কয়েকদিন কমতির দিকে থাকার পর টানা দ্বিতীয় দিন বেড়েছে শনাক্তের সংখ্যা। তবে, পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার কমে নয় শতাংশের নিচে এসেছে। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য অনুযায়ী গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত হয়েছেন ১ হাজার ৯১৪ জন। গতকাল ১ হাজার ৭৩৯ জন শনাক্তের তথ্য জানানো হয়েছিল।

মঙ্গলবার বিকালে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে দেয়া সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় ২১ হাজার ৯১৪টি নমুনা পরীক্ষায় ১ হাজার ৯১৪ জন শনাক্ত হন। এ নিয়ে মোট শনাক্ত ৭ লাখ ৬৫ হাজার ৫৯৬ জন। ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার ৮.৭১ শতাংশ। সোমবার ছিল ৮.৯৫ শতাংশ ও রবিবার ছিল ৯.৬০ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন ৩ হাজার ৮৭০ জন। আর এখন পর্যন্ত সুস্থ হলেন ৬ লাখ ৯৫ হাজার ৩২ জন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানায়, গত একদিনে যারা মারা গেছেন তাদের মধ্যে ৩৬ জন পুরুষ ও ২৫ জন নারী। মৃতদের মধ্যে ষাটোর্ধ্ব ৪৪ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের ১১ জন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের ২ জন, ৩১ থেকে ৪০ বছরের তিনজন ও ১১ থেকে ২০ বছরের একজন মারা গেছেন।

দেশে গত বছরের ৮ মার্চ প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয়। এর ১০ দিন পর ১৮ মার্চ প্রথম মৃত্যুর খবর আসে। কয়েক মাস সংক্রমণ ও মৃত্যুর হার ঊর্ধ্বগতিতে থাকার পর অনেকটা নিয়ন্ত্রণে চলে আসে। চলতি বছরের শুরুতে করোনাভাইরাসের প্রকোপ অনেকটা নিয়ন্ত্রণে থাকলেও মার্চ মাস থেকে তা শুধুই বাড়ছে। গত ১৬ এপ্রিল মৃত্যু একশো ছাড়ায়। সেদিন ও তার পরদিন ১৭ এপ্রিল ১০১ করে মৃত্যু হয় করোনায়। ১৮ এপ্রিল ১০২ জন ও ১৯ এপ্রিল ১১২ জন মারা যান, যা একদিনে সর্বোচ্চ।

বিশেষজ্ঞরা এটাকে বাংলাদেশে করোনার ‘দ্বিতীয় ঢেউ’ বলছেন। করোনা সংক্রমণ মারাত্মক আকার ধারণ করায় প্রথমে ২১ এপ্রিল ও পরে তা বাড়িয়ে ২৮ এপ্রিল পর্যন্ত লকডাউন ঘোষণা করেছিল সরকার। এরপর সেটি বাড়িয়ে ১৬ মে পর্যন্ত করা হয়েছে।

ADS ADS

প্রতিছবি ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Comments: