ADS
হেডলাইন
◈ মুজিব আদর্শে বিশ্বাসীরা কমপক্ষে ৩টি করে গাছ লাগান : প্রধানমন্ত্রী ◈ শর্তসাপেক্ষে অটোপাস দিচ্ছে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় ◈ বিসিবির নতুন চুক্তিতে থাকছেন সাকিব ◈ তিন মাসে খেলাপি ঋণ বাড়ল ৬৮০২ কোটি ◈ লিচুর পুষ্টিগুণ ◈ ওরাল কেয়ার। যে ৫টি অভ্যাস আপনার দাঁতকে রাখবে সুস্থ ও সুন্দর সবসময় ◈ গুঁড়া চিংড়ি ভর্তা ◈ নিখুঁত মেকআপ পেতে সহজ ৫টি মেকআপ হ্যাকস ◈ আন্তর্জাতিক রিসার্চ গ্রান্ড পেলেন ববির ৫ শিক্ষার্থী ◈ শেখ হাসিনা সবচেয়ে বেশি গণমাধ্যমবান্ধব সরকার প্রধান: শ ম রেজাউল ◈ ডিবি কার্যালয় থেকে বেরিয়ে যা বললেন পরীমনি ◈ মাদক মামলায় ৭ দিনের রিমান্ডে নাসির-অমি ◈ বিএনপিকে প্রমাণ করতে হবে ১৫ আগস্টই খালেদা জিয়ার প্রকৃত জন্মদিন: কাদের ◈ দেশে করোনায় আরও অর্ধশত প্রাণহানি, নতুন শনাক্ত ৩৩১৯ ◈ টানা ৭ দিন ধরে নিম্নমুখী ভারতের করোনা পরিস্থিতি ◈ রামেকের করোনা ইউনিটে আরও ১২ জনের মৃত্যু ◈ নাসির-অমিসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে এবার মাদক মামলা ◈ মেসির অসাধারণ গোলেও জয় পেল না আর্জেন্টিনা ◈ অটোমোবাইল শিল্প উন্নয়ন নীতিমালা মন্ত্রিসভায় অনুমোদিত ◈ করোনা ইস্যুতে কোনো ঝুঁকি নেয়া যাবে না: প্রধানমন্ত্রী
হোম / টিপস / বিস্তারিত
ADS

বাসায় করোনা রোগীদের হঠাৎ শ্বাসকষ্ট হলে যা করবেন!

৬ মে ২০২১, ১:০১:২১

করোনা আক্রান্ত অনেক রোগীই হাসপাতালে ভর্তি না হয়ে বাসাতেই চিকিৎসকের পরামর্শ মেনে চলেন। কিন্তু বাসায় হঠাৎ শ্বাসকষ্ট শুরু হলে কী করবেন, তার উপায় বাতলে দিয়েছেন ডাক্তাররা।

শ্বাসকষ্ট স্বাভাবিক করতে চিকিৎসকরা এক বিশেষ পদ্ধতির কথা বলছেন, যার নাম প্রোনিং। এ পদ্ধতিতে উপুড় হয়ে পেটের ওপর ভর দিয়ে শুলে, শ্বাস-প্রশ্বাসে অনেকটাই সুবিধা হবে। কোভিড আক্রাতন্তদের শ্বাসকষ্ট দেখা দিলে এই পদ্ধতি খুব কার্যকরী।

করোনায় আক্রান্ত হলে সারাদিনে নিয়ম করে শরীরের অক্সিজেন সম্পৃক্ততা মাপতে হবে। যদি দেখেন সেটা ৯৪’এর নিচে নেমে গেছে, তাহলে প্রোনিংয়ের পদ্ধতি শুরু করুন। কারণ অক্সিজেন পেতেও সাহায্য করে এ পদ্ধতি।

কীভাবে করবেন প্রোনিং
এ পদ্ধতির জন্য ৪-৫টা বালিশ সঙ্গে রাখতে হবে। প্রথমে উপুড় হয়ে শুয়ে একটা বালিশ মুখ বা গলার কাছে রাখতে হবে, ২টা থেকে ৩টা বালিশ বুকের নিচ থেকে পেটের নিচ অবধি রাখতে হবে। আরেকটা বালিশ পায়ের তলায় রাখবেন। উপুড় হয়ে ঘণ্টা খানেক থাকতে পারেন। তারপর ধীরে ধীরে ডান দিকে ঘুরতে হবে।

এভাবে আপনি আপনার সুবিধা মতো আধা ঘণ্টা থেকে ২ ঘণ্টা পযর্ন্ত থাকতে পারেন। তারপর বালিশ পিঠের কাছে রেখে বসে থাকতে হবে আরও ঘণ্টা দুয়েকের মতো। তারপর শুয়ে আবার বাঁ দিক ফিরে শুতে হবে। ফের ঘণ্টা দুয়েক থাকার পর শুরুর মতো উপুড় হয়ে শুতে হবে।

তবে ঘন ঘন পাশ ফিরে শোয়ার পরামর্শ দিয়েছেন ডাক্তাররা। আধা ঘণ্টা থেকে ২ ঘণ্টা পর্যন্ত একই ভাবে শুতে পারেন। তবে প্রত্যেক আধা ঘণ্টায় দিক বদলানোই ভাল। খাওয়ার আধা ঘণ্টা পরই এ পদ্ধতি শুরু করা ভালো।

অনেক সময় রোগীর শারীরিক অবস্থা খারাপ হলে এ পদ্ধতি তার জন্য কষ্টকর হতে পারে। তখন পরিবারের অন্য সদস্যদের তাকে সহযোগিতা করতে হবে।

সে ক্ষেত্রে করণীয় হলো- রোগীর দেহের নিচে একটা চাদর পাততে হবে। আরেকটা চাদর হাতের নিচ দিয়ে মুড়িয়ে নিতে হবে; যাতে চাদের ধরে টানলে আপনি তাকে একদিক থেকে অন্যদিক গড়িয়ে দিতে পারেন। এভাবে আপনাকে বারবার বিছানায় রোগীর জায়গা বদলে দিতে হবে।

তবে গর্ভবতী নারী, হৃদরোগে আক্রান্ত ও শিরদাঁড়ায় সমস্যা আছে এমন ব্যক্তিদের জন্য প্রোনিংয়ের পদ্ধতি উপযুক্ত নয়। সূত্র: আনন্দবাজার

ADS ADS

প্রতিছবি ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Comments: