ADS
ব্রেকিং নিউজঃ
হোম / জাতীয় / বিস্তারিত
ADS

চলবে অর্ধেক বাস, শতভাগ যাত্রী- সিদ্ধান্তে যা বললেন প্রতিমন্ত্রী

৯ আগস্ট ২০২১, ১০:৩৭:১৫

করোনার সংক্রমণ প্রতিরোধে চলমান বিধিনিষেধ শেষ হচ্ছে আগামী ১০ আগস্ট। এরপর বিধিনিষেধ শিথিল করে আগামী ১১ আগস্ট থেকে প্রতিদিন অর্ধেক গণপরিবহন চলাচল করার অনুমতি দিয়েছে সরকার। গণপরিবহন অর্ধেক চললেও যাত্রী শতভাগ বহন করা যাবে। করোনা ভাইরাসজনিত রোগের (কোভিড-১৯) বিস্তার রোধে সার্বিক কার্যাবলি/চলাচলে বিধি-নিষেধ শিথিল করে যে প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে সেখানে এ নির্দেশনা দেওয়া হয়।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, সড়ক, রেল ও নৌ-পথে আসন সংখ্যার সমপরিমাণ যাত্রী নিয়ে গণপরিবহন/যানবাহন চলাচল করতে পারবে। সড়ক পথে গণপরিবহন চলাচলের ক্ষেত্রে স্থানীয় প্রশাসন (সিটি করপোরেশন এলাকায় বিভাগীয় কমিশনার ও জেলা পর্যায়ে জেলা প্রশাসক) নিজ নিজ অধিক্ষেত্রের আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী, সংশ্লিষ্ট দপ্তর/সংস্থা, মালিক ও শ্রমিক সংগঠনের সঙ্গে আলোচনা করে প্রতিদিন মোট পরিবহন সংখ্যার অর্ধেক চালু করতে পারবে।

সরকার যেখানে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলাচলের কথা বলছে, সেখানে গাড়ির সংখ্যা কমিয়ে ভিড় বাড়িয়ে দিলে সেটা পালন সম্ভব হবে কিনা, তা নিয়ে প্রশ্নের সৃষ্টি হয়েছে। বরং গাড়ির জন্য সড়কে মানুষের ভিড় বাড়লে যাত্রী আসনের চেয়ে বেশি উঠবে, তখন ঝুঁকি আরও বাড়বে।

এ বিষয়ে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন বলেন, ‘অর্ধেক আসনের নামে বাসগুলো সব আসনে যাত্রী নেয়, ভাড়া আদায়ের ক্ষেত্রেও ৬০ শতাংশ বেশি রাখে। তাই জনভোগান্তি কমাতে নেয়া হয়েছে এই সিদ্ধান্ত।’ তিনি বলেন, ‘অর্ধেক যাত্রী না করে ফুল যাত্রী করা হয়েছে এ জন্য যে, বারবার অর্ধেক যাত্রী দিলে ওরা ৬০ শতাংশ বেশি ভাড়া নিচ্ছে, আবার একই সঙ্গে দেখা যাচ্ছে ফুল যাত্রী নিয়ে যাচ্ছে। লাভ হচ্ছে না এতে। শুভংকরের ফাঁকি। তাই বলা হয়েছে সমসংখ্যক যাত্রী নেয়ার কথা।’

অফিস চালু হলে, ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান খোলা হলে সড়কে মানুষের চলাচল যখন বাড়বে, তখন অর্ধেক গাড়িতে ভিড় যে আরও বেশি হবে- এ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করলে প্রতিমন্ত্রী বলেন, তারা মনে করছেন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকিতে প্রয়োজন ছাড়া মানুষ খুব একটা বের হবে না। অধিক্ষেত্রের মধ্যে প্রয়োজন অনুযায়ী (গাড়ি চলবে), এমনিতেই মানুষ কম বের হবে। আস্তে আস্তে হয়ে যাবে। প্রথমে শুরুটা করুক। আমরা তো ধীরে ধীরে বাড়াব, বাড়ানো হবে।’

অর্ধেক গাড়ি চলাচলের সিদ্ধান্ত নিয়ে আরও জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘আর বলা হয়েছে, যেখানে ৪০টা গাড়ি ছাড়তেন, সেখানে ২০টা গাড়ি ছাড়বেন। প্রথম পর্যায়ে ২০টার বেশি লাগবে না। কারণ, এখনও মানুষের মধ্যে ভয়-আতঙ্ক আছে আক্রান্ত হতে পারেন। আস্তে আস্তে পরিবেশ পরিস্থিতি অনুযায়ী সেটা আমরা বাড়াব।’

ADS ADS

প্রতিছবি ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Comments: